scorecardresearch
 

Kabita Utsab 2022 : যুদ্ধ পেরিয়ে জীবনের ডাকে কলকাতায় ইউক্রেনের কবি ইরিনা ভিকিরচাক

Kabita Utsab 2022: কবিতা উৎসব (Kabita Utsab 2022)-এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকবেন রাজ্যের দুই মন্ত্রী ব্রাত্য বসু (Bratya Bose), ইন্দ্রনীল সেন (Indranil Sen), পশ্চিমবঙ্গ কবিতা আকাদেমির সভাপতি, কবি সুবোধ সরকার (Paschimbanga Kabita Academy President Subodh Sarkar)-সহ বিশিষ্টরা। কবিতা উৎসব (Kabita Utsab 2022)-এ যোগ দিতে চলেছেন যুদ্ধবিধ্বস্ত ইউক্রেনের এক কবি। তিনি ইরিনা ভিকিরচাক (Iryna Wikyrtschak বা Irina Vikirchak)।

কবিতা উৎসবে যোগ দেবেন ইউক্রেনের কবি ইরিনা ভিকিরচাক (প্রতীকী ছবি) কবিতা উৎসবে যোগ দেবেন ইউক্রেনের কবি ইরিনা ভিকিরচাক (প্রতীকী ছবি)
হাইলাইটস
  • রবিবার থেকে শুরু হচ্ছে কবিতা উৎসব
  • রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে কবি-আবৃত্তিশিল্পীরা অংশ নেবেন সেখানে
  • উৎসবে যোগ দিতে চলেছেন যুদ্ধবিধ্বস্ত ইউক্রেনের এক কবি

Kabita Utsab 2022: কলকাতায় রবিবার থেকে শুরু হচ্ছে কবিতা উৎসব (Kabita Utsab 2022)। রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে কবি-বাচিকশিল্পীরা অংশ নেবেন সেখানে। এবারের কবিতা উৎসব (Kabita Utsab 2022)-এ যোগ দিতে চলেছেন যুদ্ধবিধ্বস্ত ইউক্রেনের এক কবি। তিনি ইরিনা ভিকিরচাক (Iryna Wikyrtschak বা Irina Vikirchak)। ২১ মার্চ কবিতা পাঠ করবেন। সংস্কৃতির শহর শুনবে যুদ্ধে চরম ক্ষতিগ্রস্ত এক দেশের জীবনের জয়গাথা।

নন্দনের ৭ জায়গায়
কবিতা উৎসব (Kabita Utsab 2022)-এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকবেন রাজ্যের দুই মন্ত্রী ব্রাত্য বসু (Bratya Bose), ইন্দ্রনীল সেন (Indranil Sen), পশ্চিমবঙ্গ কবিতা আকাদেমির সভাপতি, কবি সুবোধ সরকার (Paschimbanga Kabita Academy President Subodh Sarkar)-সহ বিশিষ্টরা। নন্দন চত্বরে সাতটি জায়গায় কবিতা পাঠ করা হবে, কবিতা চর্চার আসর বসবে। সেগুলো হল- রবীন্দ্রসদন, শিশির মঞ্চ, বাংলা আকাদেমি সভাগৃহ, অবনীন্দ্র সভাঘর, নন্দন-৩, চারুকলা পর্ষদ সংলগ্ন প্রাঙ্গন এবং একতারা মুক্তমঞ্চ। উদ্য়োক্তা রাজ্য তথ্য ও সংস্কৃতি বিভাগ এবং পশ্চিমবঙ্গ কবিতা আকাদেমি (Paschimbanga Kabita Academy)। 

আরও পড়ুন: দুর্ঘটনা ঠেকাতে ট্রাফিক সার্জেন্ট-কনস্টেবলদের রিফ্লেকশন জ্যাকেট-শোল্ডার লাইট মাস্ট

সবথেকে বড় কবিতার পার্বন
এবারের কবিতা উৎসব (Kabita Utsab 2022)-এ অংশগ্রহণকারীর সংখ্যা ৫৮০। কবিতা নিয়ে এত বড় উৎসব কোথাও হয় না। তিনদিন ধরে সাতখানা হলে হবে কবিতা নিয়ে কথা-আলোচনা। বলা হয়, এটা দেশের সবথেকে বড় কবিতার পার্বন।

কবি সুবোধ সরকার জানান
শনিবার পশ্চিমবঙ্গ কবিতা আকাদেমি (Paschimbanga Kabita Academy)-র সভাপতি, কবি সুবোধ সরকার বলেন, "তিনদিন ধরে সাতটি মঞ্চে হবে কবিতাপাঠ। ইউক্রেনের কবি ইরিনা ভিকিরচাক (Iryna Wikyrtschak বা Irina Vikirchak) কবিতা শোনাবেন ২১ মার্চ। ওইদিন আন্তর্জাতিক কবিতা দিবস।" তিনি জানান, কবি ইরিনা ভিকিরচাককে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে। তিনি আসছেন। ইউক্রেনীয় ভাষায় কবিতা লেখেন। সোমবার (২১ মার্চ), সন্ধে সাড়ে ৬টায় তিনি কবিতা পাঠে অংশ নেবেন। ওইদিন, আন্তর্জাতিক কবিতা দিবসে ফ্রেঞ্চ, সংস্কৃতি, আরবি, সাঁওতালি-সহ আরও বিভিন্ন ভাষার কবিতাও পড়া হবে।

বাংলার বিভিন্ন প্রান্ত থেকে আসবেন কবিরা
সুবোধ সরকার বলেন, "গ্রাম-মফঃস্বলের ৫৮০ জন আবৃত্তিশিল্পী-কবি যোগ দিতে চলেছেন। বিশেষ করে উত্তরবঙ্গ, পুরুলিয়া, বাঁকুড়া থেকে অনেক বেশি কবি আসছেন। অনেক সময় অভিযোগ থাকে কবিতা উৎসব শহর কেন্দ্রীক হয়। গ্রাম-মফঃস্বলের কবি-লেখক-শিল্পীদের সুযোগ দেওয়া হয় না। এটা আমরা এটা বিশ্বাস করি না। আমরা মনে করি গ্রাম বা শহর বলে আলাদা কিছু হতে পারে না কবিতার জন্য। কবিতার জন্য গ্রামও লাগে না, শহরও লাগে না।"

তিনি ফেসবুকে কবিতা উৎসবের ব্য়াপারে লিখেছেন:

শুধুই কবিতা
বাংলা ভাষার হাজার বছরের ঐতিহ্য। কবিতা উৎসবে তারই ধারায় স্নাত হবেন প্রবীণ-নবীনেরা। বিভিন্ন সময়ের বাঁকে, তিরিশ-চল্লিশ-পঞ্চাশের দশকে বাংলা কবিতা যে পথ পেরিয়ে এসেছে, তা নিয়ে আলোচনা হবে। অতিমারী পেরিয়ে আবার জীবনের জয়গান শোনা যাবে নতুন করে। এদিকে, কবি, উদার আকাশ পত্রিকার সম্পাদক ফারুক আহমেদ জানান, এটি দেশের সবথেকে বড় কবিতার আসর। তরুণ কবিদের আরও উৎসাহ দিতে এই অনুষ্ঠানের কোনও তুলনা হয় না। প্রবীণ-নবীনের মধ্যে মত বিনিময় হয়, আলোচনা হয়, চর্চা করা হয় কবিতা নিয়ে।