scorecardresearch
 

Leatherback Sea Turtles ZSI : সুনামি ধাক্কা সামলে বাড়ছে লেদারব্যাক কচ্ছপ, বলছে জেডএসআই-তথ্য

Leatherback Sea Turtles ZSI: প্রজননরত লেদারব্যাক সামুদ্রিক কচ্ছপের সংখ্যার ওপর নজর রাখতে জুলজিক্যাল সার্ভে অফ ইন্ডিয়া বা জেডএসআই-এর আন্দামান ও নিকোবর আঞ্চলিক কেন্দ্র সমীক্ষা শুরু করেছে। এই সমীক্ষার উদ্দেশ্য হল বাসা বাঁধা লেদারব্যাক কচ্ছপের প্রজনন সংক্রান্ত বিজ্ঞান এবং এর সঙ্গে জড়িত পরিবেশতত্ত্ব সম্পর্কে তথ্যাসংগ্রহ কর।

লেদারব্যাক কচ্ছপ। ছবি সৌজন্য: পিআইবি লেদারব্যাক কচ্ছপ। ছবি সৌজন্য: পিআইবি
হাইলাইটস
  • প্রজননরত লেদারব্যাক সামুদ্রিক কচ্ছপের সংখ্যার ওপর নজর রাখতে জুলজিক্যাল সার্ভে অফ ইন্ডিয়া সমীক্ষা করছে
  • উদ্দেশ্য হল বাসা বাঁধা লেদারব্যাক কচ্ছপের প্রজনন সংক্রান্ত বিজ্ঞান
  • এবং এর সঙ্গে জড়িত পরিবেশতত্ত্ব সম্পর্কে তথ্যাসংগ্রহ করা

Leatherback Sea Turtles ZSI: প্রজননরত লেদারব্যাক সামুদ্রিক কচ্ছপের সংখ্যার ওপর নজর রাখতে জুলজিক্যাল সার্ভে অফ ইন্ডিয়া বা জেডএসআই-এর আন্দামান ও নিকোবর আঞ্চলিক কেন্দ্র সমীক্ষা শুরু করেছে। এই সমীক্ষার উদ্দেশ্য হল বাসা বাঁধা লেদারব্যাক কচ্ছপের প্রজনন সংক্রান্ত বিজ্ঞান এবং এর সঙ্গে জড়িত পরিবেশতত্ত্ব সম্পর্কে তথ্য সংগ্রহ করা। এর পাশাপাশি ডিম, কচ্ছপ ছানা এবং পূর্ণবয়স্ক স্ত্রী কচ্ছপের আকৃতি সম্পর্কে সমীক্ষা চালানো এবং বাসা বাঁধার আচার-আচরণের ওপর নজর রাখতে গবেষণা চালানো হচ্ছে।

ট্যাগ করা হচ্ছে
হ্যাচিং-এর সাফল্য এবং লেদারব্যাক কচ্ছপ  শরীরের ভর মাপার প্রচেষ্টাও এই সমীক্ষার মাধ্যমে চালানো হচ্ছে। মোট ১৫২টি লেদারব্যাক সামুদ্রিক কচ্ছপকে ট্যাগ করা হয়েছে প্রজননের সময়ে ডিম এবং পরিণত বয়স্কদের পরিমাপ সংক্রান্ত তথ্য সংগ্রহ করার তাগিদে। এ কথা জানিয়েছেন জেডএসআই-এর অধিকর্তা ডঃ ধৃতি বন্দ্যোপাধ্যায়।

আরও পড়ুন: রাস্তায় মরে পড়ে থাকা যে কোনও প্রাণী খান এই মহিলা

আরও পড়ুন: এই ৫ TATA শেয়ার ২ হাজার শতাংশ রিটার্ন দিয়েছে, দেখুন কোনগুলি

আরও পড়ুন: Google-এ ভুলেও ব্য়াঙ্কের কাস্টমার কেয়ার নম্বর সার্চ নয়, সাবধান করল SBI

আশার কথা
পোর্টব্লেয়ারে আন্দামান নিকোবর আঞ্চলিক কেন্দ্রের বিজ্ঞানী-ই এবং দায়িত্বপ্রাপ্ত আধিকারিক ডঃ চন্দ্রকাসন শিবাপেরুমন জানিয়েছেন, গত চার বছরে বাসার সংখ্যা, ডিম পাড়ার সংখ্যা এবং ডিম ফুটে বাচ্চা হওয়ার সংখ্যা অনেকটাই বেড়েছে। ২০১৮ থেকে ২০১৯-এ ডিম ফুটে বাচ্চা হওয়ার সংখ্যা বৃদ্ধির হার ছিল ২১ শতাংশ। সেখানে ২০১৯ থেকে ২০২০-এর মধ্যে এই হার বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১৪৭ শতাংশ। বর্তমানে, প্রাপ্ত তথ্য অনুযায়ী, বাসা বাঁধা এবং ডিম পাড়ার সংখ্যা বহুলাংশে বেড়েছে। 

ZSI Andaman & Nicobar Regional Centre Initiates Study Breeding Population of Leatherback Sea Turtles

২০০৪-এ ভারত মহাসাগরে সুনামির ফলে যে বিপর্যয়ের সম্মুখীন হয় এই প্রাণীগুলি, তার থেকে ঘুরে দাঁড়াবার সম্ভাবনা দেখা যাচ্ছে বাসা বাঁধা কচ্ছপের সংখ্যায় বৃদ্ধি ঘটায়। যেহেতু ওই সময়ে সমস্ত মানব বসতি ধ্বংস হয়ে গিয়েছিল সেইজন্য ওই অঞ্চলে দূষণের প্রভাব কমই ছিল। তবে নিকোবর দ্বীপপুঞ্জে গ্রেট নিকোবর দ্বীপে অবস্থিত গ্যালাথিয়া বে অঞ্চলে এই প্রজাতির কচ্ছপের সংখ্যা উল্লেখযোগ্যভাবে বেড়েছে। 

লেদারব্যাকই বৃহত্তম
প্রসঙ্গত, কচ্ছপের মধ্যে লেদারব্যাকই হল বৃহত্তম। ভারত এবং শ্রীলঙ্কা দক্ষিণ এশিয়ার একমাত্র জায়গা যেখানে বাসা বাঁধে এই ধরণের কচ্ছপ এবং সংখ্যায় অনেক বেশি করে। সবচেয়ে দক্ষিণে অবস্থিত এবং বৃহত্তম দ্বীপ গ্রেট নিকোবরের বাতাবরণ এই সামুদ্রিক কচ্ছপের সহায়ক। এখানে প্রচুর লেদারব্যাক কচ্ছপের বাসা আছে। প্রধানত পশ্চিম উপকূলে ডাগমার এবং আলেকজান্দেরা নদীর মুখে এবং দক্ষিণ পূর্ব উপসাগর বরাবর গ্যালাথিয়া বে-র মুখে এই ধরণের অসংখ্য কচ্ছপের আনাগোণা লক্ষ্য করা গিয়েছে।

ভারত মহাসাগরীয় অঞ্চলে নিকোবর চারটি জায়গার অন্যতম যেখানে বাসা করা লেদারব্যাক কচ্ছপের সংখ্যা হাজার ছাড়িয়েছে। এ কারণে এর আন্তর্জাতিক গুরুত্বও রয়েছে। গ্রেট নিকোবরের দক্ষিণ উপকূল অঞ্চল দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার বৃহত্তম লেদারব্যাক কচ্ছপের বাসা বাঁধার স্থান। 

প্রাপ্ত তথ্য অনুযায়ী, গ্যালাথিয়া সৈকতে ২৫৫টি বাসা নিয়ে সমীক্ষা চালানো হয়েছিল এবং দেখা গিয়েছে ২০০৩-এর নভেম্বর থেকে ২০০৪-এর ফেব্রুয়ারির মধ্যে ১১৪টি কচ্ছপ বাসা বেঁধেছে এবং ২০০৪-এর নভেম্বরে ১৩৭টি লেদারব্যাক কচ্ছপ ৮৪টি বাসা বেঁধেছে। বিগত তিনটি প্রজননকালে গড়ে ৪৫০টি বাসা চোখে পড়েছে গ্যালাথিয়া বে-তে, বলে জানিয়েছেন ডঃ শিবাপেরুমন।