scorecardresearch
 

Emami East Bengal: 'হারতে আসিনি,' শহরে এসেই ইস্টবেঙ্গল কোচ কনস্ট্যানটাইনের হুংকার

চুক্তি সই, দল গঠন, তাঁর দায়িত্ব নেওয়া এই সমস্ত কিছুর মাঝে পেরিয়ে গিয়েছে বেশ কয়েকমাস। অনেকদিন আগেই খুলে গিয়েছে ট্রান্সফার উইন্ডো। তবুও চুক্তি জটে আটকে থাকা লাল-হলুদ কোনও ফুটবলার সই করাতে পারেনি। স্বদেশী থেকে শুরু করে ভাল মানের বিদেশী ফুটবলার সই করিয়ে নিয়েছে আইএসএল-এর অন্য দলগুলি।

স্টিফেন কনস্ট্যানটাইন স্টিফেন কনস্ট্যানটাইন
হাইলাইটস
  • প্রথমদিন অনুশীলনে স্টিফেন কনস্ট্যানটাইন
  • ইস্টবেঙ্গল মাঠে হল অনুশীলন

'আমি এখানে হারতে আসিনি।' লাল-হলুদের দায়িত্ব নিয়েই প্রত্যয়ের সুর স্টিফেন কনস্ট্যানটাইনের গলায়। কলকাতায় নেমেছেন সকালেই। দুপুরে চলে এলেন ক্লাবে। দল নিয়ে মাঠে নেমেও পড়লেন ইমামি ইস্টবেঙ্গল হেড কোচ স্টিফেন কনস্ট্যানটাইন। ফুটবলারদের দ্রুত ম্যাচ ফিট করে তোলাই লক্ষ্য হবে তাঁর। দীর্ঘ বিমান যাত্রার শারীরিক ক্লান্তি থাকলেও চোখে মুখে তার ছাপ দেখা গেল না। রীতিমত হুঙ্কারের সুরে লাল-হলুদের বর্তমান কোচ বলেন, ''আমি হারতে আসিনি। এর আগে ভারতীয় দলের কোচিং করিয়েছি। এখানে নতুন প্রতিভা তুলে আনার কাজও করব। কোচ হিসেবে অ্যাকাডেমি ও রিজার্ভ টিম থেকে ফুটবলার তুলে আনার দায়িত্ব আমার।''

চুক্তি সই, দল গঠন, তাঁর দায়িত্ব নেওয়া এই সমস্ত কিছুর মাঝে পেরিয়ে গিয়েছে বেশ কয়েকমাস। অনেকদিন আগেই খুলে গিয়েছে ট্রান্সফার উইন্ডো। তবুও চুক্তি জটে আটকে থাকা লাল-হলুদ কোনও ফুটবলার সই করাতে পারেনি। স্বদেশী থেকে শুরু করে ভাল মানের বিদেশী ফুটবলার সই করিয়ে নিয়েছে আইএসএল-এর অন্য দলগুলি। তবুও এই স্বল্প সময়ের মধ্যে ইমামি ইস্টবেঙ্গল যে দল গড়ছে তাতে লড়াই করার মশলা রয়েছে বলে মনে করেন স্টিফেন। সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, ''সাফল্য পেতে হলে আগে অনেক কাজ করতে হয়। তবেই সাফল্য আসে। আমাদের অনেক কাজ করা বাকি রয়েছে।''

আরও পড়ুন: পদ খোয়াতে পারেন রাহুল, রোহিতের ডেপুটি কে হতে পারেন?

স্টিফেন বাস্তব পরিস্থিতি স্বীকার করছেন। এই মরশুমে তারা আইএসএল জিতছেই এমনটা ধরে নেওয়ার কোনও কারণ দেখছেন না তিনি। স্টিফেন বলেন, ''আমাদের দৃষ্টিভঙ্গী বদল করতে হবে। অন্যান্য দলগুলি ইতিমধ্যেই অনুশীলন শুরু করে দিয়েছে। আমাদের হাতে খুব বেশি বিকল্প ফুটবলার নেই। তবে আমরা আমাদের সাধ্যমত চেষ্টা করব। আমি বলছি না আমরা এই বছরেই আইএসএল জিতে যাব। কিন্তু প্রতিপক্ষ আমাদের সঙ্গে খেলতে ভয় পাবে এমন দল গড়ব।''

আরও পড়ুন: শহরে কনস্ট্যান্টাইন, ইমামি ইস্টবেঙ্গলের প্র্যাক্টিস শুরু কবে?

এদিন স্টিফেনের প্রথম দিনের অনুশীলন দেখতে প্রচুর সমর্থক মাঠে ভিড় জমিয়েছিলেন। ছিলেন প্রাক্তন ফুটবলার ও কর্মকর্তারাও। ইস্টবেঙ্গল শীর্ষকর্তা দেবব্রত সরকারের সঙ্গে বেশ খানিকক্ষণ কথা বলেন স্টিফেন। তারপর নেমে পড়েন অনুশীলনে। ফ্যানদের মাঠে ফিরতে দেখে স্বভাবতই বেশ খুশি লাল-হলুদ কোচ। তিনি বলেন, ''কোভিডের পর ফ্যানরা মাঠে ফিরছে এটা দেখতে দারুণ লাগছে।''