scorecardresearch
 

Qute দেশের সবচেয়ে সস্তা 'গাড়ি', ৩৪ কিলোমিটার মাইলেজ, আর কী চাই!

Qute: বজাজ অটো (Bajaj Auto) গাড়ির মতো দেখতে এই Qute-কে তৈরি করেছে। এতে ২১৬ সিসি (216cc) ইঞ্জিন রয়েছে। এই ইঞ্জিন একটি অটোরিকশার সমতুল।

দেশের সবচেয়ে সস্তা গাড়ি এনেছে বজাজ অটো দেশের সবচেয়ে সস্তা গাড়ি এনেছে বজাজ অটো
হাইলাইটস
  • যদি মনে করেন Qute-এর বানান ভুল লেখা হয়েছে, তা হলে আপনাকে বলতে আপনি ঠিক ভাবছেন না
  • বলে রাখি যে এখানে আমরা Qute সম্পর্কে কথা বলছি
  • এটি আসলে একটি কোয়াড্রিসাইকেল

Qute: যদি মনে করেন Qute-এর বানান ভুল লেখা হয়েছে, তা হলে আপনাকে বলতে আপনি ঠিক ভাবছেন না। বলে রাখি যে এখানে আমরা Qute সম্পর্কে কথা বলছি। এটি আসলে একটি কোয়াড্রিসাইকেল। যা দেখতে একটি একেবারে গাড়ির মতো।  সেই হিসেবে বলা যেতে পারে এটি দেশের সবথেকে সস্তা 'গাড়ি'।

আরও পড়ুন: 'শিশুদের COVID টিকা নিয়ে কেন্দ্রের সিদ্ধান্ত বিজ্ঞানসম্মত নয়,' বলছেন AIIMS-এর গবেষক

তৈরি করেছে বজাজ
বজাজ অটো (Bajaj Auto) গাড়ির মতো দেখতে এই Qute-কে তৈরি করেছে। এতে ২১৬ সিসি (216cc) ইঞ্জিন রয়েছে। এই ইঞ্জিন একটি অটোরিকশার সমতুল। এটির সর্বোচ্চ শক্তি ১৩.১ পিএস (13.1 PS) এবং সেটি ১৮.৯ এনএম (18.9 Nm) পিক টর্ক জেনারেট করে। এতে একটি ৫-স্পিড গিয়ারবক্স রয়েছে। 

আরও পড়ুন: ব্যাঙ্কের থেকে বেশি সুদ, পোস্ট অফিসের এই স্কিমে রাখুন ১ হাজার টাকা

qute bajaj

চমকে দেওয়ার মতো মাইলেজ
দেশের সবচেয়ে সস্তা 'গাড়ি'র সর্বোচ্চ গতিবেগ ঘণ্টায় ৭০ কিমি প্রতি ঘণ্টায়। নির্মাতা কোম্পানি (Bajaj Auto)-র দাবি যে এটি সিএনজি (CNG)-তে চালানোর সময় ১ কেজিতে ৫০ কিলোমিটার, পেট্রলে ৩৪ কিলোমিটার এবং ১ লিটার এলপিজে (LPG)-তে ২১ কিলোমিটার মাইলেজ দেয়। এটি মানে Qute আগে আরই৬০ (RE60) নামে পরিচিত ছিল।

আরও পড়ুন: ডেলিভারি রুমে প্রেগন্যান্ট মহিলাকে সাহায্য করল কুকুর, সেই ছবি ভাইরাল

আকারে ছোট, জায়গায় বড়
Qute-এর দৈর্ঘ্য ২.৭ মিটার। এই গাড়িতে জিনিসপত্র রাখার জন্য সামনের অংশে ২০ লিটার স্টোরেজ বা ধারণক্ষমতা রয়েছে। যদিও এর ছাদে একটি র্যাক লাগানো যেতে পারে। এবং সেই স্টোরেজ ক্ষমতা আরও খানিকটা বাড়ানো যেতে পারে। চালক-সহ এই গাড়িতে ৪ জন বসতে পারে। মহারাষ্ট্রে এর দাম ২.৪৮ লক্ষ টাকা থেকে শুরু হয়। এভাবেই এটি দেশের সবথেকে সস্তা গাড়ি হয়ে উঠেছে।

আরও পড়ুন: রাস্তায় মরে পড়ে থাকা যে কোনও প্রাণী খান এই মহিলা

আর যা রয়েছে
কোয়াড্রিসাইকেলকে হালকা যানের এক নতুন বিভাগ বলা যেতে পারে। সাধারণত চার চাকার যানকে কোয়াড্রিসাইকেল (Quadricycle) বলা হয়ে থাকে।

আরও পড়ুন: এই ৫ TATA শেয়ার ২ হাজার শতাংশ রিটার্ন দিয়েছে, দেখুন কোনগুলি

কিন্তু এটি অন্যান্য গাড়ির থেকে বেশ আলাদা। তাই এটি একেবারেই আলাদা ক্যাটিগরি বা বিভাগ হিসাবে স্বীকৃত। Qute যানটির ডিজাইন করা হয়েছে লাস্ট মাইল কানেক্টিভিটির কথা মাথায় রেখেই।

আরও পড়ুন: Google-এ ভুলেও ব্য়াঙ্কের কাস্টমার কেয়ার নম্বর সার্চ নয়, সাবধান করল SBI

এখন সবার জন্য
এটি যেন অটোরিকশা এবং ট্যাক্সি মিলিয়ে তৈরি করা হয়েছে। তবে এটি সাধারণ অটো রিকশার চেয়ে অনেক বেশি সুরক্ষিত। এর পাশাপাশি সব রকমের পরিস্থিতিতে নিরাপদ। সাধারণত এটি গণপরিবহণের কাজে ব্যবহার করা হয়। এখন কিছু বদল আনা হয়েছে।

এবিএস এবং এয়ারব্যাগের ফিচার্স ছাড়া এবং আরও কিছু শর্ত যোগ করে সরকার ব্যক্তিগত গাড়ি হিসেবে ব্যবহার করার অনুমতি দিয়েছে।