scorecardresearch
 

Russia Ukraine Crisis Ends : 'মহাযুদ্ধ'এর পরিস্থিতি শেষ! ইউক্রেন সীমান্ত থেকে সেনা প্রত্যাহার, ঘোষণা রাশিয়ার

Russia Ukraine Crisis Ends: রাশিয়া (Russia) ও ইউক্রেন (Ukraine) সীমান্তে গত কয়েকদিন ধরে উত্তেজনা তৈরি হয়েছিল। তা এখন শেষ হবে বলে মনে হচ্ছে। আমেরিকার প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন (USA President Joe Biden) এবং ভ্লাদিমির পুতিন (Vladimir Putin)-এর মধ্যে ফোনে কথা হয়েছিল।

ইউক্রেন সীমান্ত থেকে সেনা প্রত্যাহারের ঘোষণা দিয়েছে রাশিয়া (ফাইল ছবি) ইউক্রেন সীমান্ত থেকে সেনা প্রত্যাহারের ঘোষণা দিয়েছে রাশিয়া (ফাইল ছবি)
হাইলাইটস
  • রাশিয়া ও ইউক্রেন সীমান্তে গত কয়েকদিন ধরে উত্তেজনা তৈরি হয়েছিল
  • তা এখন শেষ হবে বলে মনে হচ্ছে
  • ইউক্রেন সীমান্ত থেকে সেনা প্রত্যাহারের ঘোষণা দিয়েছে রাশিয়া

Russia Ukraine Crisis Ends: রাশিয়া (Russia) ও ইউক্রেন (Ukraine) সীমান্তে গত কয়েকদিন ধরে উত্তেজনা তৈরি হয়েছিল। তা এখন শেষ হবে বলে মনে হচ্ছে। ইউক্রেন (Ukraine) সীমান্ত থেকে সেনা প্রত্যাহারের ঘোষণা দিয়েছে রাশিয়া (Russia)। এর সঙ্গে রাশিয়া (Russia)-র সৈন্যরা এখন ক্রিমিয়া থেকে ফিরে আসছেন। 

আরও পড়ুন: ভুল করেও পেঁপে খাওয়া উচিত নয় এঁদের, হতে পারে বড়সড় ক্ষতি

সেনা প্রত্যাহার
রাশিয়া (Russia)-র এই ঘোষণাকে ইউক্রেন (Ukraine) সীমান্তে চলতে থাকা উত্তেজনা কমাতে একটি ইতিবাচক পদক্ষেপ হিসেবেই দেখা হচ্ছে। সংবাদ সংস্থাগুলোর প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ইউক্রেন (Ukraine) সীমান্ত থেকে রুশ সেনা প্রত্যাহার শুরু হয়েছে। 

আরও পড়ুন: গাজরের এই ৬ জবরদস্ত ফায়দা জানলে রোজ খাবেন, দেখুন...

আরও বলা হয়েছে, এর একদিন আগেই ইউক্রেন (Ukraine) সীমান্ত থেকে তাদের কিছু সেনা প্রত্যাহারের ঘোষণা দিয়েছে রাশিয়া। তবে রাশিয়ার এই ঘোষণার পরও অবিশ্বাস প্রকাশ করেছিল আমেরিকার পাশাপাশি অন্যান্য বেশ কিছু দেশও।

আরও পড়ুন: কোষ্ঠকাঠিন্য বিপজ্জনক, এই ১০ ঘরোয়া উপায়েই মুশকিল আসান

আমেরিকার পক্ষ থেকে বলা হয়েছিল, রাশিয়া কোথা থেকে কতজন সৈন্যকে ফেরত আনা হয়েছে, সে বিষয়ে কোনও তথ্য দেয়নি। লক্ষণীয়, একদিন আগেই রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন (Vladimir Putin) ও জার্মান চ্যান্সেলরের মধ্যে বৈঠক হয়েছিল। দুই নেতার কথোপকথনে রাশিয়ার প্রধানমন্ত্রী স্পষ্ট বলেছেন, অবশ্যই আমরা যুদ্ধ চাই না।

বাইডেন-পুতিন আলোচনা ব্যর্থ হয়েছে
আমেরিকার প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন (USA President Joe Biden) এবং ভ্লাদিমির পুতিন (Vladimir Putin)-এর মধ্যে প্রায় এক ঘণ্টার ফোনালাপের পর কোনও ফল হয়নি। ইউক্রেন সীমান্তে বিপুল সংখ্যক সেনা জড়ো করেছিল রাশিয়া। 

ট্যাঙ্কের পাশাপাশি ইউক্রেন সীমান্তে অত্যাধুনিক অস্ত্রও মোতায়েন করা হয়েছে। রাশিয়া ইউক্রেনে হামলা চালালে তার পরিণতি ভয়াবহ হবে বলে কড়া সুরে হুঁশিয়ারি দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। তবে আপাতত সে সব কিছু হচ্ছে না বলেই মনে করা হচ্ছে।