scorecardresearch
 

Kuler Achaar: পদবী বদলাতে নারাজ মিঠি! মেনে নেবে শ্বশুরবাড়ির লোকেরা? প্রকাশ্যে 'কুলের আচার'-ট্রেলার

Kuler Achaar Movie Trailer: সামনে এলো সুদীপ দাস পরিচালিত 'কুলের আচার' ছবির ট্রেলার। টক,ঝাল নাকি মিষ্টি, কুলের আচারের স্বাদটা ঠিক কেমন? আসুন চেখে দেখা যাক... 

ইন্দ্রাণী হালদার, মধুমিতা সরকার, বিক্রম চট্টোপাধ্যায়, নীল মুখোপাধ্যায় ইন্দ্রাণী হালদার, মধুমিতা সরকার, বিক্রম চট্টোপাধ্যায়, নীল মুখোপাধ্যায়

ছবির খবর চাউর হতেই দর্শকদের মনে একাধারে বেড়েছিল কৌতূহল ও উৎসাহ। কৌতূহল মূলত নাম ঘিরে এবং উৎসাহের পিছনে রয়েছে একাধিক কারণ। কথা হচ্ছে সুদীপ দাস (Sudeep Das) পরিচালিত ছবি 'কুলের আচার' (Kuler Achaar) নিয়ে। প্রযোজনা সংস্থা এসভিএফ (SVF) -র ব্যানারে আসছে এই ছবি। সামনে এলো ছবির ট্রেলার (Kuler Achaar Trailer)। টক,ঝাল নাকি মিষ্টি, কুলের আচারের স্বাদটা ঠিক কেমন? আসুন চেখে দেখা যাক...  

এই 'কুলের আচার'-র স্বাদ ঠিক কেমন, তা সম্পূর্ণ রূপে বোঝা যাবে আগামী ১৫ জুলাই থেকে। কারণ এদিনই মুক্তি পাবে এই ছবি। এবার আসা যাক দর্শকদের উৎসাহের কারণে। এই ছবিতে প্রথবার জুটিতে দেখা যাবে মধুমিতা সরকার ও বিক্রম চট্টোপাধ্যায়কে (Madhumita Sarcar and Vikram Chatterjee)। এছাড়াও মাঝে বছর তিনেকের বিরতির পর, এই ছবির মাধ্যমেই বড় পর্দায় ফিরছেন ইন্দ্রাণী হালদার (Indrani Halder)। এছাড়াও রয়েছেন নীল মুখোপাধ্যায় (Neel Mukherjee)। এবার আসা যাক ট্রেলারে। 

আরও পড়ুন: ঝগড়া মেটেনি মিঠাই- সিডের? আদৃতর অনুষ্ঠানে সৌমিতৃষার অনুপস্থিতি ঘিরে জল্পনা

'পদবী' মানব জীবনে খুব গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। বর্তমানে বহু মহিলারাই বিয়ের পর পদবী বদল করতে নারাজ। আর এটাই মূল বিষয়বস্তু এই ছবির। সেই ইঙ্গিত বারবার মিলল ট্রেলারে। এক মধ্যবিত্ত পরিবারের গল্প 'কুলের আচার'। যেখানে মিঠির সঙ্গে বিয়ে হয়, প্রীতমের। স্ত্রীকে যথেষ্ট সাপোর্ট করে সে। এদিকে বিয়ের পর মিঠি বেঁকে বসে, কিছুতেই পদবী বদলাবে না। যার জেরে বিভিন্ন সমস্যার মুখোমুখি হতে হয় তাদের। 

আরও পড়ুন: ফ্লোরেই গভীর ঘুমে রূকমা- প্রিয়ম! 'স্লিপিং বিউটিদের' ভিডিও শেয়ার করলেন রাহুল

প্রথম সমস্যার শুরু শ্বশুরবাড়িতে। তার এই সিদ্ধান্ত মানতে নারাজ শ্বশুর -শাশুড়ি - প্রণোতোষ ও মিতালি (নীল ও ইন্দ্রাণী)। তবে শুধু বাড়ির গণ্ডির মধ্যেই থাকে না, এই সমস্যা। বিয়ের পর পদবী না বদলানোয়, নিন্দা- কটাক্ষ, আলাপ- আলোচনা শুরু হয় প্রতিবেশী- পরিচিতদের মধ্যেও। এমনকি হানিমুনে গিয়েও তাদের বিবাহিত বলে মানেন না দক্ষিণী হোটেল মালিক। 

 

শ্বশুরমশাই একেবারে বেঁকে বসলেও, ধীরে ধীরে রাগের বরফ গলতে থাকে শাশুড়ি মায়ের। সে বুঝতে পারে, জীবনে কোন ভুল করে চলেছে সে। এরই মাঝে রয়েছে নানা মজা- চমক। কিছুটা কমেডির মোড়কে ব্যঙ্গাত্মক ভাবে সমাজের কাছে এক বার্তা পৌঁছে দেওয়াই এই ছবির মূল উদ্দেশ্য।  

আরও পড়ুন: প্রেম করছেন সন্দীপ্তা -সৌম্য! এবছরই বিয়ের পিঁড়িতে?  

ছবির নাম শুনে শুধু মাত্র 'আচার' মনে হলেও আসলে এর পিছনে রয়েছে আরও এক গভীর মানে। 'কুল' অর্থাৎ বংশ এবং 'আচার' অর্থাৎ 'আচার- বিচার'। সুতরাং বলা যেতে পারে বংশের আচার- বিচারের গল্প বলবে এই ছবি। পরিচালনার পাশাপাশি, এই ছবির গল্প লিখেছেন সুদীপ দাস। পরিচালক মৈনাক ভৌমিক (Mainak Bhaumik ) রয়েছেন ছবির ক্রিয়েটিভ ডিরেকশনে। ছবির সঙ্গীত পরিচালনা করছে 'প্রসেন এর দল বল' (Prosen Er Dol Bol) এবং আবহ সঙ্গীত নির্মাণ স্যাভির (Savvy)। নির্মাতাদের মতে,  নারীকেন্দ্রিক ছবি হলেও, 'কুলের আচার'-এ দর্শকরা পাবেন আদর্শ পারিবারিক বন্ধন, স্নেহ ও ভালোবাসার টক-ঝাল- মিষ্টি ফ্লেবার। 

 

 
; ; ;