scorecardresearch
 

কোচবিহারে ঘুমন্ত শাশুড়ির গলার নলি কেটে খুন করল জামাই

শাশুড়িকে গলা কেটে খুন করল জামাই। ঘটনাটি ঘটেছে কোচবিহারের পুণ্ডিবাড়ি থানার পাতলাখাওয়া গ্ৰাম পঞ্চায়েতের ছাঁট সিঙ্গিমারি এলাকায়। এলাকা থমথমে।

প্রতীকী ছবি প্রতীকী ছবি
হাইলাইটস
  • ঘুমন্ত শাশুড়ির গলার নলি কাটলো জামাই
  • পুলিশ পলাতক জামাইকে গ্রেফতার করেছে
  • মদ্যপ অবস্থায় গলা কাটে বলে জানা গিয়েছে

শাশুড়িকে গলা কেটে খুন করল জামাই। ঘটনার পর থেকে এলাকা থমথমে। ঘটনাটি ঘটেছে কোচবিহারের পুণ্ডিবাড়ি থানার পাতলাখাওয়া গ্ৰাম পঞ্চায়েতের ছাঁট সিঙ্গিমারি এলাকায়। ঘটনার পর থেকে পলাতক ছিল অভিযুক্ত জামাই। পুলিশ অভিযুক্তের খোঁজে তল্লাশি শুরু করে তাকে গ্রেফতার করে। মৃতদেহ ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, মৃত বৃদ্ধার নাম বদি ওরাওঁ (৮০)। গ্রেপ্তার হয়েছে অভিযুক্ত জামাই দিলীপ ওরাওঁ (৪০)।স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, দু’দিন ধরে দিলীপের বাড়িতে ছিলেন তার শাশুড়ি। বৃহস্পতিবার রাত ১২টা নাগাদ নেশাগ্রস্ত অবস্থায় বাড়িতে আসে দিলীপ। সেই সময় ঘুমিয়ে ছিলেন ওই বৃদ্ধা।

অভিযোগ, ঘরে ঢুকেই শাশুড়িকে গলা কেটে খুন করেন দিলীপ। তার স্ত্রী তা দেখে চিৎকার করলে সেখান থেকে পালিয়ে যায় অভিযুক্ত । শুক্রবার সকালে ঘটনাস্থল থেকে বৃদ্ধার দেহটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তে পাঠায় পুণ্ডিবাড়ি থানার পুলিশ।

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, অভিযুক্ত যুবক শ্রমিকের কাজ করে। রোজই রাতে মদ্যপান করে এসে স্ত্রীর সঙ্গে বচসায় জড়াতো ওই ব্যক্তি। স্ত্রীকে মারধরের অভিযোগও রয়েছে তার বিরুদ্ধে। এই নিয়ে পারিবারিক ্অশান্তি রোদকার ঘটনা। দুদিন থেকে শাশুড়ি তার বাড়িতে এসে থাকছিল। রাতে মদ্যপান করে এসে আচমকাই শাশুড়ির গলায় ধারালো অস্ত্র দিয়ে কোপ দেয় যুবক। এদিন কোনও গোলমাল কেউ শোনেনি বলেই পড়শিরা জানিয়েছেন।

পুন্ডিবাড়ি থানার পুলিশ খুনের মামলা দায়ের করে তদন্ত শুরু করেছে। অস্ত্রটিও বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে। পুলিশের তরফ থেকে। এদিন তাকে আদালতে পেশ করা হয়েছে।